কোরানের ১০ টি বৈজ্ঞানিক প্রমাণিত তথ্য ! 10 Shocking Facts From Quran in Bangla - Bangla SMS Point- বাংলা-SMS-পয়েন্ট

Latest

Sunday, June 21, 2020

কোরানের ১০ টি বৈজ্ঞানিক প্রমাণিত তথ্য ! 10 Shocking Facts From Quran in Bangla

10 Shocking Facts From Quran | কোরানের ১০ টি বৈজ্ঞানিক প্রমাণিত তথ্য

10 shocking facts from the quran, quran facts, scientific facts in quran, 100 facts about quran, 9 scientific facts in quran, quran facts and figures, 10 miracles of quran, miraculous quran


কুরআন হ'ল মহান আল্লাহ তায়ালার  কাছ থেকে প্রেরিত মানবতার প্রতি সর্বশেষ এবং চূড়ান্ত ওহীর গ্রন্থ এবং নবীগণকে দেওয়া প্রত্যাদেশের সর্বশেষতম গ্রন্থ।


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


যদিও কুরআন (১৪০০ বছর আগে অবতীর্ণ হয়েছে)  বিজ্ঞানের বই নয়, তবুও কোরানে ১০০০ এর ও বেশি আয়াতে বিভিন্ন ধরণের  বৈজ্ঞানিক তথ্য রয়েছে যা প্রযুক্তি এবং বৈজ্ঞানিক জ্ঞানের অগ্রগতির মাধ্যমে মানুষ সম্প্রতি আবিষ্কার করেছে।


ইসলাম  বৈজ্ঞানিক গবেষণাকে উত্সাহ দেয়, কারণ সৃষ্টির প্রকৃতি বোঝা মানুষকে তাদের সৃষ্টিকর্তা এবং তাঁর শক্তি ও প্রজ্ঞার পরিধিটিকে আরও উপলব্ধি করতে সক্ষম করে।


কুরআন এমন এক সময়ে অবতীর্ণ হয়েছিল যখন বিজ্ঞান আদিম ছিল। (10 Shocking Facts From Quran in Bangla) আজকের প্রযুক্তির মতো কোনও টেলিস্কোপ, মাইক্রোস্কোপ  কিছুই ছিল না। লোকেরা বিশ্বাস করত যে সূর্য পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে এবং এর আকার সমতল।


এই রকম অবস্থায় কোরআন অবতীর্ণ হয়েছিল, এবং এতে জ্যোতির্বিজ্ঞান থেকে জীববিজ্ঞান, ভূতত্ত্ব থেকে শুরু করে প্রাণিবিদ্যার মতো বিভিন্ন বিষয়ে অনেক বৈজ্ঞানিক তথ্য রয়েছে।


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

তো আজকের এই আর্টিকেলটিতে কুরআনে প্রাপ্ত বহু বৈজ্ঞানিক তথ্যগুলির মধ্যে ১০ বৈজ্ঞানিক তথ্য (10 Shocking Facts From Quran in Bangla) আপনাদের সাথে শেয়ার করবো যেগুলো একজন মুসলিমের জন্য জানা অত্যান্ত আবশ্যক। তো চলুন শুরু করা যাক।


১.  জীবনের উৎস (Origin of Life):-

জলকে সমস্ত জীবনের উত্স হিসাবে চিহ্নিত করা হয়। আর আমরা সকলেই জানি যে জল জীবনের জন্য কতটা প্রয়োজন, তবে কুরআন খুব অস্বাভাবিক দাবি করেছে যে....


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


“আমরা জল থেকে প্রতিটি জীবিত জিনিস তৈরি করেছি। তারা কি বিশ্বাস করবে না? ”(কুরআন ২১:৩০)


এই আয়াতে সমস্ত জীবনের উত্স হিসাবে জলকে চিহ্নিত করা হয়েছে। সমস্ত জীবন্ত প্রাণী, cells বা কোষ দ্বারা গঠিত। আর আমরা এখন জানি যে কোষগুলি বেশিরভাগ অংশ জল দ্বারা গঠিত ।


উদাহরণস্বরূপ, একটি স্ট্যান্ডার্ড  এনিম্যাল বা প্রাণী কোষের সাইটোপ্লাজম বা বেসিক সেল ম্যাটেরিয়াল 80% জল দ্বারা গঠিত ।


আর এই সত্যটি মাইক্রোস্কোপের আবিষ্কারের পরেই আবিষ্কার করা সম্ভব হয়েছে। আরবের মরুভূমিতে বসে কোনো প্রকার মর্ডার্ন ইকুইপমেন্ট ছাড়াই কিভাবে কেউ এই চূড়ান্ত সত্যটি অনুমান করতে পারে যে সমস্ত জীবন জল থেকে এসেছে।


নিশ্চয় আমার আল্লা, যিনি এই আকাশ এবং জমিনের মালিক, তিনিই একমাত্র এইধরণের চুড়ান্ত সত্যটি বলেছিলেন।


২. মানব ভ্রূণের বিকাশ (Human Embryonic Development):-

মেডিকেল সায়েন্সে Embryology বা ভ্রূনতথ্য নতুন একটি বিষয়। বিংশ শতাব্দীর আগে পর্যন্ত মানব ভ্রূণের মঞ্চায়ন ও শ্রেণিবিন্যাস সম্পর্কে বৈজ্ঞানিকদের ধারণা খুবই কম ছিল।


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


কোরান মানব ভ্রূণ সম্মন্ধে এইভাবে বলেছেন। ........




আরবি শব্দ "আলাকাহ" এর তিনটি অর্থ রয়েছে: একটি জোঁক, আরেকটি স্থগিত হওয়া জিনিস এবং জমাট বাঁধা রক্ত। "মুদগাহ" এর অর্থ একটি চিবানো পদার্থ।


ভ্রূণতত্ত্ব বিজ্ঞানীরা পর্যবেক্ষণ করেছেন যে ভ্রূণ গঠনের বর্ণনা দেওয়ার ক্ষেত্রে কোরানের এই শব্দগুলির ব্যবহার ১০০% সঠিক এবং বিকাশের প্রক্রিয়া সম্পর্কে আমাদের বর্তমান বৈজ্ঞানিক বোঝার সাথে সঙ্গতিপূর্ণ।


ভ্রূণ গঠনের এই স্টেপ গুলি মেডিকেল সাইন্স কিছুদিন আগে জানতে পেরেছে আর এই স্টেপগুলি সম্মন্ধে (10 Shocking Facts From Quran in Bangla) ডিটেইলসে কুরআনে ১৪০০ বছর আগে বলা হয়েছে।


তাহলে এইবার আপনিই ভেবে দেখুন এই তথ্যগুলো ১৪০০ বছর আগে কে বলতে পারে।


৩. মহাবিশ্বের সম্প্রসারণ (Expansion of the Universe):-

এমন এক সময়ে কুরআনে এই তথ্যটি বর্ণিত হয়েছিল যখন Astronomy was still primitive জ্যোতির্বিজ্ঞান  আদিম ছিল। সেই সময় কোরান আমাদের এই তথ্যটি দেয়।


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


কোরান মহাবিশ্বের সম্প্রসারণ সম্পর্কে এইভাবে বলেছেন। .....


“এবং আমরা [আমাদের সৃজনশীল] শক্তি দিয়ে মহাবিশ্ব তৈরি করেছি এবং এটি প্রসারিত করে চলেছি।" (কুরআন ৫১:47)



উপরোক্ত শ্লোকটির উদ্দেশ্যযুক্ত অর্থগুলির মধ্যে একটি হ'ল আল্লাহ মহাবিশ্বকে বিস্তৃত করছেন- যা সত্য, মহাবিশ্ব যে বিস্তৃত হচ্ছে তা গত শতাব্দীতে আবিষ্কার হয়েছিল। 


পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং তাঁর 'A  ব্রিফ হিস্ট্রি অফ টাইম' গ্রন্থে মহাবিশ্বর বিস্তৃতি সমম্পর্কে লিখেছেন, যেটা  বিংশ শতাব্দীর অন্যতম দুর্দান্ত অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল খোঁজ বা আবিষ্কার ছিল।"

৪. লোহাকে পাঠানো হয়েছে (Iron Sent Down):-

লোহা পৃথিবীর কাছে অপ্রাকৃত। এটি পৃথিবীতে গঠিত হয়নি তবে বাইরের স্থান থেকে পৃথিবীতে নেমে এসেছিল। এটি শুনতে আপনাকে অদ্ভুৎ  লাগতে পারে তবে এটি সত্য।


বিজ্ঞানীরা দেখতে পেয়েছেন যে কোটি কোটি বছর আগে পৃথিবী উল্কা দ্বারা আটকে গিয়েছিল।


এই উল্কাটি দূরবর্তী কোনো তারা থেকে লোহাকে বহন করে নিয়ে এসেছিলো যা পরে বিস্ফোরিত হয়ে পৃথিবীর চারিদিকে ছড়িয়ে পরে।


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


কুরআন লোহার উত্স সম্পর্কে এইভাবে বলেছেন -


“আমরা আয়রনকে এর বিশাল অন্তর্নিহিত শক্তি এবং মানবজাতির জন্য এর বহু সুবিধা সহকারে অবতীর্ণ করেছি।” (কুরআন ৫ 57:২৫)


লোহার জন্য আল্লাহ ‘নাযিল’ শব্দটি ব্যবহার করেন। এই আয়াত থেকে এটা স্পষ্ট যে লোহা পার্থিব উপাদান নয়, মানবজাতির উপকারের জন্য অবতীর্ণ হয়েছিল।


এই সত্যটি সপ্তম শতাব্দীর আদিম বিজ্ঞান দ্বারা জানা যায়নি।


৫. আকাশের সুরক্ষা (Sky's Protection)

আকাশ পৃথিবী রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আকাশ পৃথিবীকে সুর্যের প্রাণঘাতী রশ্মি থেকে রক্ষা করে। যদি আকাশের অস্তিত্ব না থাকে তবে সূর্যের বিকিরণ পৃথিবীর সমস্ত জীবনকে মেরে ফেলত।


পৃথিবীকে হিমশীতল থেকে রক্ষা করতে আকাশ পৃথিবীর চারপাশে মোড়ানো কম্বলের মতো কাজ করে,


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


আকাশের ঠিক উপরে তাপমাত্রা প্রায় -270oC। যদি এই তাপমাত্রা পৃথিবীতে পৌঁছতে থাকে, তবে গ্রহটি তাত্ক্ষণিকভাবে ফ্রিজ হয়ে যাবে।


আকাশ তাপ ধরে রাখার (10 Shocking Facts From Quran in Bangla) মাধ্যমে পৃষ্ঠকে উষ্ণায়িত করে এবং দিন ও রাতের মধ্যে তাপমাত্রা চূড়ান্ততা হ্রাস করে পৃথিবীতে প্রাণ রক্ষা করে।


কুরআন আমাদেরকে এইভাবে আকাশকে নিয়ে বিবেচনা এবং চিন্তা করতে বলেছে----


“আমরা আকাশকে একটি প্রতিরক্ষামূলক সিলিং করেছিলাম। তবুও তারা আমাদের নিদর্শন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে! ”(কুরআন ২১:৩২)


কুরআন আকাশের সুরক্ষাকে আল্লাহর নিদর্শন হিসাবে দেখায়। আকাশের প্রতিরক্ষামূলক বৈশিষ্ট্যগুলি বিশ শতকে পরিচালিত বৈজ্ঞানিক গবেষণা দ্বারা আবিষ্কার করা হয়েছে ।


৬. পর্বতমালা (Mountains):-

কুরআন পর্বতমালার একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে যেটি কুরআনে এইভাবে বলা হয়েছে ---

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


“আমরা কি পৃথিবীকে বিশ্রামের জায়গা বানিয়েছিলাম না? এবং পর্বতমালা দণ্ড হিসাবে? "


কুরআন পর্বতগুলির গভীর শিকড়কে ইংরেজি শব্দ স্টেক বা খুঁটি দ্বারা বুঝিয়েছেন। প্রকৃতপক্ষে, পর্বতমালার গভীর শিকড় রয়েছে এবং স্টেক বা খুঁটি শব্দগুলি তাদের জন্য সঠিক বর্ণনা।


জিওফিজিসিস্ট ফ্র্যাঙ্ক প্রেসের ‘আর্থ’ শীর্ষক একটি বই ব্যাখ্যা করেছে যে পর্বতমালা শিবিরের মতো যেটাকে পৃথিবী পৃষ্ঠের নিচে অনেক গভীর পর্যন্ত সমাহিত করা হয়।


(10 Shocking Facts From Quran in Bangla) মাউন্ট এভারেস্ট, যার উচ্চতা মাটি থেকে প্রায় 9 কিলোমিটার উপরে, এর মূলটি 125 কিলোমিটারের চেয়েও গভীর।


বিংশ শতাব্দীর শুরুতে প্লেট টেকটোনিক্স তত্ত্বের বিকাশ না হওয়া পর্যন্ত পাহাড়ের শিকড়গুলি যে পৃথিবীকে স্থির রেখেছে তা জানা যায়নি। এই অজানা তথ্যটি কোরান আমাদের আজ থেকে ১৪০০ বছর আগেই বলে দিয়েছে।


7. সূর্যের ঘূর্ণন (Sun’s Orbit):-

1512 খ্রিস্টাব্দে জ্যোতির্বিদ নিকোলাস কোপার্নিকাস তিনি বলেছিলেন যে সৌরজগতের কেন্দ্রস্থলে সূর্য গতিহীন, এবং গ্রহগুলি তার চারপাশে ঘোরে।

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


বিশ শতকের আগ পর্যন্ত জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মধ্যে সূর্যকে স্থির রাখার বিশ্বাস প্রচলিত ছিল। এটি এখন একটি সুপ্রতিষ্ঠিত বৈজ্ঞানিক সত্য যে সূর্য স্থির নয়, তবে সূর্য আমাদের মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সির কেন্দ্রস্থল প্রদক্ষিণ করে।


কুরআন সূর্যের কক্ষপথের কথা এইভাবে উপস্থাপন করেছেন----


“তিনিই তিনিই সৃষ্টি করেছেন রাত ও দিন, সূর্য ও চন্দ্র, প্রত্যেকে তার কক্ষপথে ভাসমান।” (কুরআন ২১:৩৩)


কয়েক দশক আগে কুরআনকে জ্যোতির্বিদরা ভুল মনে করতো। তবে আমরা এখন জানি যে সূর্যের গতির কুরআনীয় বিবরণ আধুনিক জ্যোতির্বিজ্ঞানের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।


৮. সুমুদ্রের অভ্যন্তরীণ তরঙ্গ (Internal Waves in the Ocean):-

সাধারণত এটি ধারণা করা হত যে সমুদ্রের তরঙ্গগুলি কেবলমাত্র সমুদ্রের পৃষ্ঠে ঘটে।


তবে সমুদ্র বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন যে সমুদ্র পৃষ্ঠের নীচে এমন অভ্যন্তরীণ তরঙ্গ রয়েছে যা মানুষের চোখের জন্য অদৃশ্য এবং কেবল বিশেষ সরঞ্জাম দ্বারা সনাক্ত করা যায়।

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


কুরআনে মহান আল্লাহ তায়ালা এই তথ্যটি এইভাবে উল্লেখ করেছেন----


"একটি গভীর সমুদ্র যা তরঙ্গ দ্বারা আচ্ছাদিত, যার উপরে তরঙ্গ, যার উপরে মেঘ, অন্ধকারের স্তর, একে অন্যের উপর "


কোরানে এই বর্ণনাটি আশ্চর্যজনক। কারণ 1400 বছর আগে কোনও বিশেষজ্ঞ মর্ডার্ন ইকুইপমেন্ট ছাড়ায়  সমুদ্রের গভীরে অভ্যন্তরীণ তরঙ্গ কিভাবে আবিষ্কার করা হয়েছে।


(10 Shocking Facts From Quran in Bangla) এখান থেকে আরেকবার প্রমাণিত হয় যে কোরান নিশ্চয় মহান আল্লাহ তায়ালার বাণী।


৯. মিথ্যা ও আন্দোলন (Lying & Movement):-

হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সময়ে একজন নিষ্ঠুর অত্যাচারী আদিবাসী নেতা বসবাস করতেন। আল্লাহ তাকে সাবধান করার জন্য একটি আয়াত অবতীর্ণ করেছেন---


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


"না, যদি সে থামে না, তবে আমরা তাকে কপাল দিয়ে ধরে ফেলব; তার মিথ্যা, পাপী কপাল।"


এই আয়াতে আল্লাহ এই ব্যক্তিকে মিথ্যাবাদী বলছেন না, তবে তাঁর কপালকে বলেছেন

(মস্তিষ্কের সামনের অংশ), অসংখ্য গবেষণায় দেখা গেছে যে আমাদের মস্তিস্কের সামনের অংশ মিথ্যা এবং স্বেচ্ছাসেবী আন্দোলনের জন্য দায়ী।


এই ফাংশনগুলি মেডিকেল ইমেজিং সরঞ্জামগুলির সাথে আবিষ্কার করা হয়েছিল যা বিংশ শতাব্দীতে বিকশিত হয়েছে ।


১০. দুটি সমুদ্র যা মিশে না (The Two Seas that do not Mix):-

সমুদ্র সম্পর্কে, মহান আল্লাহ তায়ালা বলেছেন----


"তিনি দুটি সমুদ্রকে একসাথে রূপান্তরিত করেছেন এবং তাদের মধ্যে একটি বাধা সৃষ্টি করেছেন যা তারা ভেঙে না।"


10 Shocking Facts From Quran  in Bangla

10 Shocking Facts From Quran  in Bangla


এই বিক্রিয়াটি জলের ঘনত্বের পার্থক্যের কারণে পৃষ্ঠের উত্তেজনা নামক একটি শারীরিক শক্তি পার্শ্ববর্তী সমুদ্রের জলের মিশ্রণকে বাধা দেয়। যেন তাদের মাঝে একটি পাতলা প্রাচীর হয়েছে।


এটি  সম্প্রতি সমুদ্রবিদরা আবিষ্কার করেছেন। (10 Shocking Facts From Quran in Bangla) এছাড়াও কোরান ওয়াটার সার্কেল নিয়ে বিস্তারিত বলেছে। যেগুলি মর্ডার্ন হাইড্রোলজি রিসেন্টলি আবিষ্কার করেছে।



'আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক'


প্রবন্ধের লেখা অপরিবর্তন রেখে এবং উৎস উল্লেখ্য করে আপনি Facebook, Twitter, ব্লগআপনার বন্ধুদের Email Address সহ অন্য Social Networking ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেনমানবতার মুক্তির লক্ষ্যে ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিন। "কেউ হেদায়েতের দিকে আহবান করলে যতজন তার অনুসরণ করবে প্রত্যেকের সমান সওয়াবের অধিকারী সে হবেতবে যারা অনুসরণ করেছে তাদের সওয়াবে কোন কমতি হবেনা" [সহীহ্ মুসলিম২৬৭৪]

No comments:

Post a Comment