বিনা টাকায় ১০ টি লাভজনক ব্যবসার আইডিয়া | টাকা ছাড়া ব্যবসা

বিনা টাকায় ১০ টি লাভজনক ব্যবসার আইডিয়া | টাকা ছাড়া ব্যবসা

টাকা ছাড়া ব্যবসা | গ্রামে বসে ব্যবসা | নতুন ব্যবসা | ঘরে বসে অনলাইন ব্যবসা | নতুন ব্যবসা | স্মার্ট আইডিয়া

বর্তমান সময়ে গভমেন্ট জবই হোক আর প্রাইভেট জব যে কোন জব পাওয়াটা কিন্তু মোটেও সহজ কাজ নয় ! বিকজ আপনার মতই আরো লক্ষ কোটি মানুষও ক্রমশ সেই কাজ গুলির জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ! 

img
টাকা ছাড়া ব্যবসা

এমনকি তাদের মধ্য থেকেও অনেকে হয়তো আপনার থেকে অনেক গুন বেটার বা ট্যালেন্টেড কেউ ! এ কারণেই বর্তমানে বেকারত্বের সংখ্যা দিন দিন খুব দ্রুত গতিতে বেড়ে চলেছে !

হ্যাঁ বেকারত্বের সংখ্যা তো থাকবেই বাট এর জন্য নিশ্চয়ই নিজের ভাগ্যকে দোষ বিয়ে সারা জীবন বসে থাকা তো চলবে না ! 

তাই তার থেকে তো সেটাই ভালো হবে যদি আপনি নিজের ছোটখাটো কোন বিজনেস শুরু করে ফেলেন ! 

কারণ এই ছোট বিজনেসক ই পৃথিবীতে বহু মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করেছে ! এবং পরবর্তীতে সেগুলি কোটি টাকার বিজনেস এর পরিবর্তিত হয়েছে ! 

তাই বসে না থেকে আজ থেকেই শুরু করুন !

আর যদি আপনার ইচ্ছা জব করারও না হয়ে থাকে তা হলেও কোনো প্রবলেম নেই বিকজ এই ছোট বিজনেস গুলির সাথে সাথে আপনি জবের জন্য প্রিপারেশন নিতে পারবেন ! 

তো আজকে আমি আপনাদেরকে এমন দশটি বিজনেস এর কথা বলব যে হলে আপনি বিনা ইনভেস্ট করেই শুরু করতে পারবেন ! বিস্তারিত জানতে এই আর্টিকেলটি লাস্ট পর্যন্ত করতে থাকুন ! 

বর্তমান যুগ ইন্টারনেটের যুগ, ইন্টারনেট ছাড়া তো আমাদের একদিনও চলে না ! 

তাই যারা ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম এইসব সোশ্যাল সাইটগুলি ছাড়া এক দিনও কাটাতে পারেন না তাদের জন্যই এই প্রথম বিজনেস আইডিয়াটি !

1. Social Media Management:

সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট বলতে বোঝায় অন্যদের সোশ্যালমিডিয়া গুলিকে ম্যানেজ করা !আর যদি আপনি নিজে একজন সোশ্যাল মিডিয়া রিলেটেড পারসন হয়ে থাকেন তাহলে এই কাজটি করতে আপনার কোন প্রবলেম হওয়ার কথাই হয় ! 

যে কোন কোম্পানি, অরগানাইজেশন, বিজি পারসন, সেলিব্রেটি, পলিটিশিয়ান, সিঙ্গার, অ্যাক্টর, ডান্সার অর্থাৎ যাদের সময়ের ভীষণ অভাব তাদের সোশ্যাল অ্যাকাউন্টগুলি ম্যানেজ করতে পারেন ! 

আপনি এধরণের বিজি মানুষদের সঙ্গে কন্টাক করে নিজের কর্ম দক্ষতা অনুযায়ী ইনকাম জেনারেট করতে পারেন ! 

2. Used Product Buying & Selling:

Used Product Buying & Selling বলতে বোঝাচ্ছে পুরনো জিনিস একজনের থেকে কিনে নিয়ে অন্য কোথাও বিক্রি করা ! 

আর বর্তমানে ওএলএক্স এবং কুইকার এর মত প্লাটফর্ম গুলি আসার ফলে এই বিজনেসটি আরো অনেকটাই সহজ হয়ে গেছে ! 

এর ফলে আপনি জিনিস কেনার জন্য যেমন লোক সহজে পেয়ে যাবেন আবার বিক্রি করার জন্য কাস্টমারের অভাবও হবে না ! 

তবে এখানে অবশ্যই আপনাকে অলওয়েজ সতর্ক থাকতে হবে যাতে আপনার ইনভেস্ট করা মানি লস না হয়ে যায় !

3. Wedding Planner:

সবাই চাই যে তাঁর বিয়েটা যেন সারা জীবন মনে রাখার মতো হয় ! আর এই কারনেই প্রত্যেকে একজন ওয়েডিং প্ল্যানার কে হায়ার করে থাকেন ! 

এন্ড অল্পকিছু রিচার্জ এবং নলেজ কালেক্ট করে আপনি খুব সহজেই একজন ওয়েডিং প্ল্যানার হিসাবে নিজের বিজনেস শুরু করতে পারেন!

4. Catering Service:

বিয়ে বাড়ি হোক কিংবা কোন পার্টি ভালো ক্যাটারিং সার্ভিস তো সবাই আশা করে ! তাই অল্প কিছু ইনভেসমেন্ট এবং একটি টিম তৈরি করে সহজেই আপনি আপনার নিজের ক্যাটারিং সার্ভিস শুরু করতে পারেন ! 

5. Ball Pen Budiness:

অল্প কিছু ইনভেস্টমেন্ট এবং একটু ধৈর্যের সাথে কাজ করে আপনি এ বিজনেস থেকে প্রতিদিন 500 থেকে হাজার টাকা খুব সহজেই ইনকাম করতে পারবেন !

এই বিজনেস সম্পর্কে বিস্তারিত ইউটিউবে সার্চ জানতে পারবেন ! না হলে কমেন্ট করুন আমি নেক্সট আর্টিকেল টি বলপেন বিজনেস এর উপরে পাবলিশ করব !

6. Fast Food Center:

যদি আপনার খাবার তৈরি করতে একটুও ইন্টারেস্ট থেকে থাকে তাহলে আর বেশী দেরী না করে নিজের ফাস্ট ফুড সেন্টার শুরু করুন ! 

প্রথম অবস্থায় লোক বহুল কোন এরিয়ায় ছোটখাটো কোন দোকান ভাড়া নিয়ে এই কাজটি শুরু করতে পারেন ! 

আর অবশ্যই খাবারের কোয়ালিটি ঠিক রাখার বিষয়টি আপনাকে মনে রাখতে হবে ! 

আর একটু খোঁজ নিলে আপনি জানতে পারবেন যে এই ফাস্ট ফুড সেন্টার থেকে অনেকেই মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে !

7. Photography:

ফটোগ্রাফি যদি আপনার Passion হয়ে থাকে তাহলে এটা আপনার জন্য খুবই ভালো একটি প্রফেশনও হয়ে উঠতে পারে ! 

যদি আপনার কাছে কোন ডিএসএলআর ক্যামেরা থেকে থাকে তাহলে আপনি ওয়েডিং, পার্টি বা অন্য যেকোনো বড় ইভেন্টে ফটো এবং ভিডিওগ্রাফি শুরু করতে পারেন ! 

আর তাছাড়াও আপনি যেকোনো ক্রিয়েটিভ ছবি অনলাইনে সেল করেও ইনকাম করতে পারেন ! এর জন্য জাস্ট একটি স্মার্ট ফোন আর আপনার ইন্টারেস্টই যথেষ্ট !

8. Coaching Center & Online Tutorial:

সাইন্স, আর্টস, কমার্স, সিঙ্গিং, ডান্সিং, কম্পিউটার, ফটোগ্রাফি, রান্না করা বা গিটার বাজানো যেটাতে আপনি এক্সপার্ট সেই টপিকের উপর এই কোচিং ক্লাস দেওয়া শুরু করে দিন ! 

এছাড়াও আপনি আপনার এই সমস্ত ট্যালেন্ট, স্কিলস এবং নলেজ গুলিকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে অডিয়েন্সের সামনে তুলে ধরতে পারেন ! 

এবং প্রচুর পরিমাণ ইনকাম করতে পারেন ! এজন্য আপনি ইউটিউব, lynda.com, udamy.com প্রভৃতি ফেমাস এবং ট্রাস্টেড প্লাটফর্ম গুলির হেল্প নিতে পারেন !

9. Medical Sample Collection:

আপনি পেশেন্টের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ব্লাড ইউরিন প্রভৃতি কালেক্ট করে জেনুইন প্যাথলজিক্যাল টেস্ট করে করিয়ে রিপোর্ট সংগ্রহ করে সেটি বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতে পারেন 
এবং এর পরিবর্তে পেশেন্ট এর থেকে তো একটা কাজ করবেন !

তার সাথে সাথে প্যাথলজিক্যাল অ্যাপ থেকেও এক্সট্রা কমিশন হিসেবে নিয়ে একটা ভালো ইনকাম জেনারেট করতে পারেন !

10. Turist Guide:

আপনার এরিয়ায় যে সমস্ত টুরিস্ট প্লেস রয়েছে তার সম্পর্কে তো আপনি নিশ্চয়ই ভালোভাবে জেনে থাকবেন ! 

Rides এবং এই সুযোগটাকে কাজে লাগিয়েই আপনি একজন টুরিস্ট গাইড হিসাবে ইনকাম শুরু করতে পারেন ! 

যেমন ধরুন কলকাতা এরিয়া তে আপনার বাড়ি হলে নিশ্চয়ই আপনি কলকাতার সমস্ত টুরিস্ট প্লেস গুলো সম্পর্কে ভালো ভাবেই জেনে থাকবেন ! 

আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আপনি অন্য রাজ্য বা অন্য কোন দেশ থেকে আগত মানুষদেরকে গাইড করুন আর নির্দিষ্ট একটা এমাউন্ট চার্জ করুন ! 

তো এই ছিল আজকে 10 টি বিজনেস আইডিয়া এর মধ্যে আপনার কোনটি ভালো লাগল নিশ্চয়ই কমেন্ট করে জানান !

শেষ কথাঃ 

এইরকম আরও আর্টিকেল পাওয়ার জন্য আপনি আমার ব্লগটির সাথে কানেক্টেড থাকতে পারেন ! আমি প্রতিনিয়ত এই ধরনের আর্টিকেল পাবলিশ করে থাকি !

0 Comments